জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে ৬ জন (ভিডিও)

0
IQSHA IT

বরগুনা প্রতিনিধি: রিফাত শরীফ হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতের কাছে জবানবন্দি দিয়েছে মামলায় ৫ আসামী। বরগুনার মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালাত গাজী সিরাজুল ইসলামের আদালতে আসামীরা জবানবন্দি দেন।

বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যায় মামলাম এজাহারভুক্ত ৪ নম্বর আসামী চন্দন ও ৯ নম্বর আসামী মোহাম্মদ হাসানকে আদালতে হাজির করা হলে তারা ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেন। এরপর শুক্রবার বিকেলে এদিকে সন্দেহভাজন আসামী মো. সাগর, কামরুল হাসান সাইমুন ও নাজমুল হাসানকে ফের আদালতে হাজির করা হয়। এদের মধ্যে সাগর ও নাজমুল ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতের কাছে জবানবন্দি দেয়। কামরুল হাসান সাইমুনকে আরও পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে বাকি দুজন আসামীদের জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয় আদালত। এর আগে পহেলা জুলাই মামলার এজাহারভূক্ত ১১ নম্বর আসামী অলি ও তানভীরও হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়।

দ্বিতীয় আসামী রিফাত ফরাজীকে ৩ জুলাই বুধবার রাতে পুলিশ গ্রেফতার করে আদলতে হাজির করে ১০দিনের রিমান্ড চাইলে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। এছাড়াও মামলায় ১২ নম্বর আসামী টিকটক হৃদয় ও রাফিউল ইসলাম রাব্বীকে ৫ দিনের রিমান্ডে নিয়ে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করছে। বরগুনা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. হুমায়ুন কবির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
মামলায় এ পর্যন্ত ১০ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। প্রধান আসামী নয়ন বন্ড মঙ্গলবার ভোররাতে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৬ জুন বুধবার সকালে বরগুনা সরকারি কলেজের প্রধান ফটকের সামনে রিফাত শরীফকে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে যখম করে সন্ত্রাসীরা। গুরুতর যখম অবস্থায় তাঁেক বরিশাল সেবাচিমে নিয়ে যাওয়া হলে বিকেল সোয়া চারটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ঘটনার পরেরদিন নিহতের বাবা দুলাল শরীফ বাদি হয়ে ১২জনকে আসামী করে বরগুনা সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!