৮জন গ্রেফতার, দ্রুত ভালো একটি খবর দিতে পারবো- এসপি

0
IQSHA IT

বরগুনা প্রতিনিধি:-
বরগুনা চাঞ্চল্যকর রিফাত হত্যার ঘটনায় ৬
৮জন আসামী গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পুলিশ। দুপুরে বরগুনার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন তাঁর কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে আসামীদের নাম পরিচয় প্রকাশ করেছেন। রিফাতের বাবা দুলাল শরীফের দায়ের করা মামলার এজাহারভুক্ত ১২জনের মধ্যে ২জন ও ঘটনায় জড়িত সন্দেহে আরও ৬জনের নাম প্রকাশ করেছে জেলা পুলিশ।

গ্রেপ্তার হওয়া এজাহারভুক্ত আসামীরা হলেন, বরগুনার পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডে আমতলা এলাকার বাসিন্দা অরুণ চন্দ্র সরকারের ছেলে জয় চন্দ্র ওরফে চন্দন সরকার (২১) ও পৌর শহরের কলেজ সড়কের আয়নাল হকের ছেলে মোহাম্মদ হাসান। চন্দন ওই মামলার ৪ নং এবং হাসান ৯ নং আসামী। এছাড়াও ভিডিও ফুটেজে সনাক্ত ও জড়িত সন্দেহে সদর উপজেলার পোটকাখালী এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে মোঃ নাজমুল হাসান (১৮), পৌরশহরের ৪নং ওয়ার্ডের ধানসীঁড়ি সড়কের নয়া মিয়ার ছেলে তানভীর (২২), নলী মাইঠা এলাকার আবদুল লতিফ মাষ্টারের ছেলে মোঃ সাগর(১৯) ও সদর উপজেলার ৬নং বুড়ির চর ইউনিয়নের হাজার বিঘা এলাকার কায়সার আহমেদের ছেলে কামরুল হাসান সাইমুন (২১) কে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। এছাড়ারও রবিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে বরগুনার পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন আরও দু’জনকে গ্রেফতার নিশ্চিত করেছেন। সবশেষ গ্রেফতার দুজন হল মামলার ১১ নং আসামী ওলি ও ১২নং আসামী টিকটক হৃদয়।

পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন বলেন, দেশব্যাপী অভিযান অব্যহত রয়েছে। আশা করি দ্রুততম সময়ের মধ্যে আমরা ভালো একটি খবর দিতে পারবো।

এদিকে সকাল থেকে বিভিন্ন সংগঠন রিফাত হত্যার প্রধান আসামীদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি অব্যহত রেখেছে। বেলা ১১টায় বরগুনা প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে জেলা বিএনপি। মানববন্ধনে জেলা বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা মানববন্ধনে অংশ নেন। এসময় বক্তব্যে জেলা বিএনপি’র সভাপতি নজরুল ইসলাম মোল্লা বলেন, ক্ষমতার আধিপত্যে দেশ এখন কসাইখানায় পরিণত হয়েছে রিফাত হত্যা সবশেষ তার উদহরণ। রাজনৈতিক ছত্রচ্ছায়ায় এই খুনিরা দীর্ঘদিন ধরে অপরাধের জাল বিস্তার করে আসছে। মাথার উপরে ছায়া থাকায় এদের কেউ কিছু বলার সাহস পায়নি। আমরা জঘন্য এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে নেপথ্যের মদদাতাদেরও খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার দাবি করছি। এছাড়াও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোটেক আবদুল হালিম মিয়া, সি.সহ সভাপতি এজেডএম সালেহ ফারুক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তারিকুজ্জামান টিটু, জেলা যুবদলের সভাপতি জাহিদ হোসেন মোল্লা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। পরে বেসরকারি উন্নয়ণ সংগঠন অ্যাডাবের উদ্যোগে আরও একটি মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। অ্যাডারেব সভাপতি জাকির হোসেন মিরাজ, কাজী শোয়েব ফখরুল প্রমুখ এতে অংশ নেন। এছাড়াও বিকেল পাঁচটায় একই স্থানে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ একই দাবিতে প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। এতে বক্তব্য রাখেন সংগঠনটির জেলা শাখার সভাপতি মাহুমুদুল হাসান ওলি উল্লাহ, ইসলামী শাসনতন্ত্র বাংলাদেশ বরগুনা শাখার সাবেক সভাপতি মাওলানা ইদ্রিসুর রহমান প্রমুখ

Leave A Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!