কেউ ফিরছেন বস্তা নিয়ে, কেউ ফিরে যায় চার কেজিতে

0
IQSHA IT

বরগুনা সদর ইউনিয়নে ঈদের বিশেষ ভিজিএফ সহায়তায় বিতরণে মাপে কম দেয়া অভিযোগ উঠেছে। এছাড়াও চাল না পেয়ে খালি হাতে বাড়িতে ফিরেছেন অনেকে।

শুক্রবার দুুপু্রে সরেজমিনে বরগুনা সদর ইউনিয়নে গিয়ে দেখা যায়, ভিজিএফ সহায়তা নিতে আসা বেশ কয়েকজন নারী বস্তায় ৪ থেকে ৫ কেজি চাল চাল নিয়ে যাচ্ছেন। যায়েদা বেগম নামের একজন বলেন, আমারে মেম্বর কার্ড দিয়া চাউল আনতে যাইতে কইছে। আইছি পর চাইর কেজি চাউল দিয়া কয় আর নাই, এহন বাড়ি যাও”। একই অভিযোগ ফাতেমা বেগমেরও। তিনি বলেন আমারে ৫ কেজি চাউল দিয়া দিছে। কইছে চাউল আর নাই, ওই দ্যাহেন পাঁচ বস্তা চাউল হেরা গাড়িতে নিয়ে যায়”।

একটু সামনেই দেখা যায় ইজি বাইকের ভেতরে ৩০ কেজির ৫টি বস্তায় চাল। কিসের চাল নিচ্ছেন জানতে চাইলে একজন জানান, এইয়া মোগো ৫ জনের লেবারির চাউল”। মোরা খাটছি দুই দিন হেইতে মোগো এই চাউল দেছে”। এসময় বেশ কয়েকজনকে কার্ড হাতে এসে চাউল ছাড়াই ফিরতে দেখা যায়। আবদুল লতিফ নামের একজন বলেন, আমারে কার্ড দিয়া কইছে চাউল নিতে আসতে। আইসছি পর কয় চাউল নাই, সব দেওয়া শ্যাষ, এহন বাড়ি যাও।

এসময় ইউপি কার্যালয়ে সদস্য ও চেয়ানম্যান কাউকেই পাওয়া যায়নি।

গ্রাম পুলিশ সদস্যরা জানান, গতকাল চাল বিতরণ নিয়ে আপত্তি তোলায় চেয়ারম্যানকে বাদ দিয়ে মেম্বরদের চাল বিতরণের দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। সে কারণেই চাল বিতরণে চেয়ারম্যানের অনুপস্থিতিতে চাল বিতরণ করা হয়েছে।
যোগাযোগ করা হলে ইউপি সদস্য মনির হোসেন চাল কম দেয়া প্রসঙ্গে বলেন, গতকাল চেয়ানম্যানের বিতরণের পর চাল যা অবশিষ্ট ছিল সবার মাঝে ভাগ করে দিয়েছি। সময়মত যারা এসেছে কাউকে ফেরানো হয়নি। একজনের চাল তিনজনকে ভাগ করে দিয়েছি, যাতে কেউ ফেরত না যায়। কার্ডধারীদের চাল না পাওয়া প্রসঙ্গেও তিনি বলেন, সময়মত আসেনি বলে চাল পায়নি। লেবারদের পারিশ্রমিক হিসেবে ৩০ কেজি চাল সিদ্ধান্তমতেই দেয়া হয়েছে।

চেয়ারম্যান গোলাম আহাদ সোহাগ বলেন, গতকাল চাল বিতরণ করার সময় মেম্বররা আপত্তি তুলে কান্ড বাঁধিয়ে জনগণ ক্ষেপিয়ে আমার কার্যালয়ে হামলা করেছে শুধুমাত্র এই কারণেই, যে; আমি বিতরণ করলে তারা আত্মসাত করতে পারবেনা। আপত্তি মেনে আমি আজ তাদের দায়িত্বে চাল বিতরণ হয়েছে। কেউ চাল কম পেলে এ দায় ইউপি সদস্যদের।

সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা আনিসুর রহমান বলেন, চাল কম দেয়ার বিষয়টি আমি শুনেছি। কেন কম বিতরণ করা হয়েছে আমি খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেবো।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!