পোড়া ভবন থেকে বের করা হচ্ছে একের পর এক লাশ

0
IQSHA IT

এফ আর টাওয়ারের বিভিন্ন তলা থেকে উদ্ধার করা হচ্ছে আহতদের ছবি: আবদুস সালাম

বনানীর অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়েই চলছে। আজ বৃহস্পতিবার রাত আটটা পর্যন্ত এ সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ জনে। আর আহতের সংখ্যা ৭০ জন বলে জানা গেছে।

রূপায়ণ (এফ আর) টাওয়ারে লাগা ওই অগ্নিকাণ্ড সন্ধ্যার দিকে নিয়ন্ত্রণে আসে। এর পর ভবনটির বিভিন্ন ফ্লোরে প্রবেশ করেন ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা। আর এতেই বের হতে থাকে একের পর লাশ।

এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় স্থাপিত ফায়ার সার্ভিসের কন্ট্রোল রুম থেকে রাত আটটার দিকে নিহতের সংখ্যা ১৯ ও আহতের সংখ্যা ৭০ বলে জানিয়েছে। দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয় বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

বনানীর আগুনের ঘটনায় নিহত একজনের নাম আবদুল্লাহ আল ফারুক। ছেলেকে হারিয়ে আহাজারি করছেন বাবা মকবুল আহমেদ। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল, ঢাকা, ২৮ মার্চ। ছবি: সাইফুল ইসলাম
বনানীর আগুনের ঘটনায় নিহত একজনের নাম আবদুল্লাহ আল ফারুক। ছেলেকে হারিয়ে আহাজারি করছেন বাবা মকবুল আহমেদ। ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল, ঢাকা, ২৮ মার্চ। ছবি: সাইফুল ইসলাম
বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফরমান আলীর বক্তব্য থেকে নিহতদের মধ্যে সাতজনের নাম জানা গেছে। তাঁরা হলেন, পারভেজ সাজ্জাদ (৪৭), আমেনা ইয়াসমিন (৪০), মামুন (৩৬), শ্রীলঙ্কার নাগরিক নিরস চন্দ্র, আবদুল্লাহ আল ফারুক (৩২), মাকসুদুর (৬৬) ও মনির (৫০)।

পুলিশ সূত্রে থেকে জানানো গেছে, আমেনা মারা গেছেন অ্যাপোলো হাসপাতালে। পারভেজ সাজ্জাদ বনানী ক্লিনিকে, নিরস চন্দ্র কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে এবং মামুন, মাকসুদুর ও মনির ইউনাইটেড হাসপাতালে মারা গেছেন। এ ছাড়া ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন আবদুল্লাহ আল ফারুক।

Leave A Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!