বরগুনায় ধর্ষন মামলায় একজনকে যাবজ্জীবন ও দুইজনকে ১৪ বছরকারাদন্ড।

0
IQSHA IT

নিজস্ব সংবাদদাতা, বরগুনা, ১৩ মার্চ।। বরগুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলার এক স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করে ধর্ষণ করার অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করে একজনকে যাবজ্জীবন ও দুইজনকে ১৪ বছর সশ্রম কারাদন্ড ও এক লক্ষ টাকা অর্থ দন্ডে দন্ডিত করার আদেশ দিয়েছে আদালত।
আদালত ১নং আসামী মো. রিয়াজকে ধর্ষনের অভিযোগে যাবজ্জীবন এবং অপহরনের অভিযোগে ১৪ বছর সশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করেন। বুধবার বরগুনা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান এ রায় ঘোষনা করেন।
যাবজ্জীবন দন্ডপ্রাপ্ত আসামী হলো পাথরঘাটা উপজেলার জামিরতলা গ্রামের আবদুস সত্তার হাওলাদারের ছেলে মো. রিয়াজ। রিয়াজের সহযোগী একই গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে ছগির আংটি ও আফজাল খানের ছেলে মোনাবর। এ রায় ঘোষনার সময় মোনাবর অনুপস্থিত ছিল।
মামলার বাদী ফরিদ পহলান পাথরঘাটা থানায় ২০১১ সালের ৮ ডিসেম্বর অভিযোগ করেন, তার এসএসসি পরীক্ষার্থী কন্যা ৩০ নভেম্বর সকাল অনুমান ৮টার সময় স্কুলে যাওয়ার পথে ওই আসামীরা জোর পূর্বক অপহরণ করে নিয়ে যায়।
কিছুদিন পর দন্ডপ্রাপ্ত আসামী রিয়াজ বিয়ের নাটক করে স্কুল ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষন করে। অপহরণ ও ধর্ষনের সহযোগিতা করেছে ছগির ও মোনাবর। বাদী তার মেয়েকে খুজে না পেয়ে পাথরঘাটা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধারের মামলা করে।
পাথরঘাটার পুলিশ স্কুল ছাত্রীকে আসামীদের দখল থেকে উদ্ধার করে আদালতে হাজির করে। মামলার বাদী স্কুল ছাত্রীর বাবা রায়ে সন্তুষ্ট হয়েছে। আসামী রিয়াজ বলেন, এই রায়ের বিরুদ্ধে আমরা উচ্চ আদালতে আপীল করবো।
রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন বিজ্ঞ বিশেষ পি,পি মোস্তফিজুর রহমান বাবুল। আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাড. জহিরুল হক নান্না।
মোস্তফা কাদের

Leave A Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !!